ভারত সেবাশ্রম সংঘ: দুমকা শাখা

 

ভারত সেবাশ্রম সংঘ: দুমকা শাখা

স্বামী প্রণবানন্দ বিদ্যা মন্দিরে সাগুন সোহরায় পার্বন




 

সাঁতাল জাতিগোষ্ঠীর মহান পার্বন বান্দনা কে সোহরায় পার্বন বলা হয়। বর্তমানে সোহরায় পার্বন সর্ব ধর্ম সমন্বয়ে রূপ নিয়েছে। দুমকা শহর থেকে ৪৫ কিলো মিটার দূরে পশ্চিম বঙ্গের বীরভূম লাগোয়া পাথরার স্বামী প্রণবানন্দ বিদ্যা মন্দিরে সাড়ম্বরে পালিত হল সোহরায় পার্বন। সাঁতালদের প্রথাগত প্রদ্ধতিতে আশ্রমের স্বামী নিত্যব্রতা নন্দ মহারাজের পৌরাহিত্যে নায়কি, পারানিক, গুড়ুম নায়কি গোট পূজা করেন। সেই সঙ্গে এখানে আবাসিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী ছাত্র সাঁতালী নৃত্য, গান পরিবেশন করে। স্কুলের কচি কাঁচা ছাত্রের কবিতা পাঠ করে আলাদা মাত্রা এনে দেয়। অনুষ্ঠানে জাতীয় শিক্ষক সম্মানে সম্মানিত অবকাশ প্রাপ্ত শিক্ষিকা ভারতী চট্টোপাধ্যায়, বকুল মুখোপাধ্যায়, সচ্চিদানন্দ সরেন, চঞ্চল পান্ডা, ফিলিপ সরেন, আকিল পাওরিয়া, চিত্রকার প্রসেনজিৎ মাল অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। সচ্চিদানন্দ বাবু জানিয়েছেন ১৮৫৫ সালের সাঁতাল বিদ্রোহের পর ওই বছর ২২ ডিসেম্বর ইংরেজ বীরভূম জেলা’কে খণ্ডিত করে সাঁতাল পরগনা স্বতন্ত্র জেলা ঘোষণা করে। ওই বিদ্রোহে বহু সংখ্যক আন্দোলনকরি ইংরেজের গুলিতে শহীদের মৃত্যু বরণ করে। সেই বছর এখান কার অধিবাসীরা সোহরায় পর্ব উদযাপন করেনি। পরে এখানে জানুয়ারি মাসে সোহরায় পর্ব উদযাপন শুরু হয়। ওই বিদ্রোহের পূর্বে কার্তিক মাসে পার্বন উদযাপন করা হত। দেশের অন্য রাজ্যে কার্তিক মাসেই উদযাপন করা হয়। আশ্রমের স্বামী জি বলেছেন এই পার্বন টি মূলত প্রকৃতির উপাসক সাঁতালদের পার্বন। বর্তমানে বিভিন্ন ধর্ম ও ভাষা গোষ্ঠীর সাধারণ মানুষ সোহরায় পর্ব উদযাপন করে।

প্রতিবেদন – গৌতম চট্টোপাধ্যায়

"শরৎশশী" পত্রিকার ৩৭ বর্ষ

 

"শরৎশশী" পত্রিকার ৩৭ বর্ষ

বিগত বছরগুলোর মতো এবারেরও কিশোরদের পত্রিকা "শরৎশশী" পত্রিকার ৩৭ বর্ষ, শারদীয়া ১৪২৭ বঙ্গাব্দের সংখ্যাটিও মনোরঞ্জন করার আপ্রাণ চেষ্টা করা হয়েছে। গল্প, ছড়া ও কবিতা, প্রবন্ধ, নাটক, কমিকস্ এবং পুরনো লেখার পুনর্মুদ্রণের পাশাপাশি "পুরাতনী"  অংশে সাহিত্যিক 'স্বপনবুড়ো'কে নিয়ে অশোককুমার রায়-এর একটি মনোজ্ঞ নিবন্ধ স্থান পেয়েছে। লেখক তালিকায় রয়েছেন ষষ্ঠীপদ চট্টোপাধ্যায়, স্বপন বুড়ো, নিতাই মোদক, অমিত মন্ডল, আব্দুল শুকুর খান, সুদর্শন মুখোটি, অশোক কুমার সেনগুপ্ত,নির্মলেন্দু গৌতম প্রমুখ। বর্তমান  অতিমারির পরিস্থিতিতে বই ও পত্র-পত্রিকা প্রকাশনা নানা কারণেই প্রবল প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে চলেছে। এমতাবস্তায় ক্ষুদ্র পত্রপত্রিকাগুলি শুধুমাত্র তাঁদের নিজস্ব উদ্যম এবং এক অনির্বচনীয় তাগিদে তাদের যাত্রা অব্যাহত রাখায় দৃঢ়প্রতিজ্ঞ থেকেছে। বলাবাহুল্য "শরৎশশী"ও তার ব্যতিক্রম নয়। তবু শারদীয়া পত্রিকাটি  নির্দিষ্ট সময় এবছর প্রকাশ করা সম্ভব হলো না সেজন্য সুধী পাঠক-পাঠিকাদের কাছে আগাম মার্জনা চেয়ে নিচ্ছি ।

 


 


উপরোক্ত কারণেই এ বছর পত্রিকাটির সাড়ম্বর উদ্বোধন থেকে আমাদের দূরে থাকতে হয়েছে। আজ ৬ জানুয়ারি ২০২১ তারিখে একান্ত ঘরোয়া পরিবেশে মুষ্টিমেয় গুণগ্রাহীর উপস্থিতিতে পত্রিকাটি প্রকাশিত হল। আগ্রহীরা ডাকযোগে বা সরাসরি দপ্তর থেকে পত্রিকাটি সংগ্রহ করতে পারবেন।

আপনাদের সকলের আন্তরিক সহৃদয়তার পরশমণি থেকে যেন কখনো বঞ্চিত না হই, এটুকু আমাদের প্রার্থনা। সকলে ভালো থাকবেন।

প্রতিবেদন - অরূপ দাস, সম্পাদক, "শরৎশশী" পত্রিকা।।

পুস্তক পরিচয়: 'স্মৃতির সরণিতে সংগ্রামী মঞ্জু', সম্পাদনা: সুদেষ্ণা চক্রবর্তী, শরৎশশী

 

'স্মৃতির সরণিতে সংগ্রামী মঞ্জু', সম্পাদনা: সুদেষ্ণা চক্রবর্তী, শরৎশশী



বইটি হাওড়ার অন্যতম ক্ষুদ্র পত্রিকা 'শরৎশশী'র প্রয়াত  সহ-সম্পাদক ও সাহিত্যিক মঞ্জু দাস-এর স্মরণ সংখ্যা। উক্ত পত্রিকার সম্পাদক অরূপ দাস-এর পত্নী মঞ্জু দেবী কীভাবে বাংলাদেশের ছিন্নমূল উদ্বাস্তু জীবন থেকে একজন শিক্ষিকা, সমাজকর্মী এবং সাহিত্যিক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করলেন সেই সংগ্রামী জীবন-কথা সূচনাতে সুদেষ্ণা চক্রবর্তীর কলমে বর্ণিত হয়েছে। ক্ষুদ্র পত্রপত্রিকা জগতের সম্পাদক এবং ঘনিষ্ঠ নানা জনের স্মৃতিচারণে সমৃদ্ধ লেখাগুলিতে মঞ্জু দেবীর ব্যক্তি ও সাহিত্য প্রতিভা উন্মোচিত হয়েছে। আগাগোড়া ছবিতে সাজান বইটির দ্বিতীয় ভাগে প্রয়াত লেখিকার রচনাপঞ্জি এবং নির্বাচিত বেশ কয়েকটি ছড়া ও ছোট গল্প স্থান পেয়েছে। পাঠক বইটিতে এক নারীর সংবেদনশীল মননের পরিচয় পাবেন।। হাওড়া, ২০২০,মূল্য:১৫০ 

প্রতিবেদন -  অরূপ দাস

প্রয়াত রাজীব ব্যানাজী' মহাশয়ের স্মরণ সভা: বিহার বাঙ্গালী সমিতি, ফরবেশগঞ্জ শাখা

 

প্রয়াত রাজীব ব্যানার্জী স্মরণ সভা:

বিহার বাঙ্গালী সমিতি ফরবেশগঞ্জ শাখা















গত (০৩/০১/২০২১) সন্ধ্যা ৬ টায় ঘটিকায় বিহার বাঙ্গালী সমিতি ফরবেশগঞ্জ শাখার ব্যানার তলে শাখার সদস্য শ্রী সুব্রত কুনডু মহাশয়ের নিবাসে প্রয়াত রাজীব ব্যানার্জী মহাশয়ের স্মরণ সভার আয়োজন করা হয়। উপস্থিত সকলে ১মিনিট নিরবতা পালনের পর শ্রী দীপক মিত্র (সভাপতি), উজ্জ্বল চৌধুরী (উপ সভাপতি), সঞ্জয় পাল (সচিব), মদন চ্যাটার্জি (উপ সচিব), সমীর পাল, সুব্রত কুনডু, গোপাল নন্দী, রতন সেন, অলোক সেন গুপ্ত, কৌশিক পাল, রাকেশ মিত্র, সোম কুনডু,  বিশ্বজিৎ মিত্র ও উপস্থিত অন্যান্য সকলে স্বগী'য় রাজীব দার তৈল চিত্রে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন। সকলে তাঁর অবদান সম্বন্ধে নিজ নিজ বক্তব্য রাখেন।

প্রতিবেদক - প্রণব দাস

বাংলা প্রবন্ধ: নানামুখী অনুধ্যান ১ ও বুদ্ধদেব বসুর কাব্যনাটক: সৃষ্টি ও নির্মাণ

 

বাংলা প্রবন্ধ: নানামুখী অনুধ্যান ১ ও

বুদ্ধদেব বসুর কাব্যনাটক: সৃষ্টি ও নির্মাণ



আচার্য সুকুমার সেন মহাবিদ্যালয়, গোতান, বর্ধমান এর অতিথি অধ্যাপক সৌমেন বৈরাগ্য ইংরেজি নববর্ষের প্রথম সপ্তাহের মঙ্গলবার ছাত্র ছাত্রীদের একটি দলকে নিয়ে পর্যটন স্থল মসানজোড় এসে চড়ুই ভাতি করেন। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষা সমিতি, ঝাড়খণ্ডের স্টেট সেক্রেটারি গৌতম চট্টোপাধ্যায়। সৌমেনবাবু গৌতমবাবুকে তার সম্পাদিত বাংলা প্রবন্ধ: নানামুখী অনুধ্যান ১ ও বুদ্ধদেব বসুর কাব্যনাটক: সৃষ্টি ও নির্মাণ প্রবন্ধের বই দুইটি উপহার দেন। নানামুখী অনুধ্যান ১ গ্রন্থটি বিভিন্ন গবেষক এর মিলিত ফসল, সংগ্রহ করে রাখার মত। বুদ্ধ দেব বসুর কাব্য নাটকটি হল সৌমেন বাবুর গবেষণা পত্র।  তারই জন্ম শত বর্ষে এম ফিলে এই গবেষণা করেছেন।

প্রতিবেদক - গৌতম চট্টোপাধ্যায়

লেখক ও ভাষা সৈনিক (অজিত রায়) এর পত্নী (প্রেরণা রায়) শোক

 

লেখক ও ভাষা সৈনিক (অজিত রায়)

এর পত্নী (প্রেরণা রায়) শোক



ঝাড়খণ্ডের বিশিষ্ঠ লেখক ও ভাষা সৈনিক অজিত রায় এর ধর্মপত্নী প্রেরণা রায় চিরতরে চলে গেলেন। গত ২৫ দিন থেকে রাঁচির রিমসে ভর্তি ছিলেন। রবিবার সকালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্য কালে বয়েস হয়েছিল ৫৫ বছর। উনি বিগত ছয় মাস থেকে চিকিৎসাধীন ছিলেন।  রিমসে তার চিকিৎসার জন্য ২৫ দিন থেকে হসপিটালে ছিলেন অজিত বাবু ও তার একমাত্র কন্যা স্নেহা রায়। বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির উন্নয়নের একনিষ্ঠ কর্মীর পত্নীর মৃত্যু এই প্রতিবেদক কে খবর দেন জ্ঞান বিজ্ঞান সমিতির জাতীয় সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ড. কাশীনাথ চ্যাটার্জি। কাশী বাবু বলেন রাঁচিতে অজিত বাবুর পরিচিতি নেই। অথচ কোভিড এর এই পরিস্থিতিতে ধানবাদে শেষ কৃত্য সম্পন্ন করা কঠিন, রাঁচিতেই অন্তিম সংস্কার করতে হবে। বিষয়টি সকাল সকাল বাংলা সংবাদ পত্রের সম্পাদক সিদ্ধার্থ ব্যানার্জি ও বাংলা একাডেমির সম্পাদক মৃগেন্দ্র বিশ্বাস'কে জানিয়ে সাহায্য চাওয়া হয়। দুই জনের কাছে সব ধরণের সাহায্য পেয়েছেন অজিত বাবু। অজিত বাবু ও তার স্ত্রী প্রেরণা বিনোবাভাবে বিশ্ব বিদ্যালয় এর পিকে রায় কলেজ ধানবাদ থেকে এক সঙ্গে রাজনীতি শাস্ত্রে এম. এ . করেন। ডঃ চ্যাটার্জি জানিয়েছেন অজিত বাবুর সাহিত্য চর্চার কাজে প্রেরণা যোগাতেন তার ধর্মপত্নী।

প্রতিবেদক - গৌতম চট্টোপাধ্যায়

শ্রদ্ধাঞ্জলি সভা: প্রয়াত রাজীব ব্যানার্জি: আয়োজক: বিহার বাঙালি সমিতি: ভাগলপুর শাখা:

 

বিহার বাঙালি সমিতি, ভাগলপুর এবং সমগ্র ভাগলপুরবাসীর আত্মার আত্মীয় স্বর্গীয় রাজীব ব্যানার্জির  মর্মান্তিক, আকস্মিক প্রয়াণে আগামী রবিবার 27.12.2020 বেলা তিনটায় দুর্গাচরণ উচ্চ বিদ্যালয়ে এক শ্রদ্ধাঞ্জলি সভার আয়োজন করা হয়। স্বর্গীয় আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা ও সহমর্মিতা জ্ঞাপন করতে সকল সংস্থা ও সুধীজনকে এই শ্রদ্ধাঞ্জলি সভায় উপস্থিত হতে আবেদন জানিয়েছিলেন সমিতির ভাগলপুর শাখার সম্পাদক শ্রী জয়জিৎ ঘোষ। বহু মানুষ এই সভায় উপস্থিত হয়ে আমাদের প্রাণের মানুষ প্রয়াত রাজীব ব্যানার্জির শ্রদ্ধাঞ্জলি সভায় যোগদান করেন।

প্রতিবেদন - জয়জিৎ ঘোষ।   












ভারত সেবাশ্রম সংঘ: দুমকা শাখা

  ভারত সেবাশ্রম সংঘ: দুমকা শাখা স্বামী প্রণবানন্দ বিদ্যা মন্দিরে সাগুন সোহরায় পার্বন   সাঁতাল জাতিগোষ্ঠীর মহান পার্বন বান্দনা কে সোহরা...